LifestyleGhar
Everything Here । Search Your Content । Give your Feedback Us

৫মিনিটেই বানিয়ে ফেলুন ফ্রেমসহ স্মরণিকা

স্মরণিকা

স্মরণিকা খুব সুন্দর একটি সাজানো জিনিস। যেকোনো স্মৃতিকে ছবির মাধ্যমে কিংবা ফটোশুট ডিজাইনের মাধ্যমে লিখে রাখা জিনিসটিকে দেয়ালে সাজিয়ে রাখা টা একটি সুন্দর বিষয়।

আধুনিক যুগে ছবি কিংবা বিবাহ মৃত্যু,জন্ম,স্মরণিকা গুলো খুব সুন্দর ফটোশপের মাধ্যমে ডিজাইন করে সুন্দর একটি প্রেমের মাধ্যমে ঘরে রাখা যায়।

কিভাবে একটি স্মরণিকা বানাবো

আমি এখন দেখব কিভাবে এটি তৈরি করতে হয় ইতিমধ্যে জেনেছি অনেক ধরনের এগুলা হয়ে থাকে যেমন জন্ম,মৃত্যু এবং বিবাহ স্মরণিকা ।আজকে দেখব কিভাবে একটি মৃত্যু স্মরণিকা তৈরী করতে হয়

এই নামটা আমাদের কাছে খুব পরিচিত। এটি যেনো আমাদের জীবন একটা অংশ।

কোনো কিছুর স্মৃতি কিংবা কোনো আনন্দের মুহূর্ত কে ধরে রাখতেই এটির কাজ। বিবাহ ,মৃত্যু , কিংবা জন্ম স্মরণিকা এগুলা আমাদের দৈনন্দিন জীবনের একটা সুন্দর অংশ।

কিভাবে এটি তৈরী করবেন

আমরা আজকে প্রথমে দেখবো একটি মৃত্যু স্মরণিকা ডিজাইন কিভাবে তৈরী করবেন। খুব দ্রুত এবং সুন্দর ভাবে। তার আগে আমরা আরো কিছু বিষয় জেনে নেই স্মরণিকার সাইজের ব্যাপারে।

আরো পড়ুন – পাসপোর্ট সাইজ ছবি বানিয়ে নিন

স্মরণিকা সাইজ

এটি বিভিন্ন সাইজের হতে পারে আপনার রুচির উপরে। আপনি কত সাইজের নিতে চাচ্ছেন। দেয়ালের জন্যে বেশ কিছু সাইজ রয়েছে, যেমন :
11″ x 14″
16″ x 20″
20″ x 24″
24″ x 36″
30″ x 40″
এধরনের বিভিন্ন সাইজ রয়েছে। যার মাধ্যমে খুব সহজেই একটি নিখুঁত ফ্রেইম বানিয়ে নিতে পারবেন। স্মরণিকার ডিজাইনের উপর এটি নির্ভর করছে।

স্মরণিকা

এটি বানানোর খরচ

আপনি যদি লোকাল কোনো ফটো স্টুডিও থেকে কিনতে চান। তবে সেটি যেমন খরচ হতে পারে। মিনিমান A4 সাইজের একটি ডিজাইন সহ ফ্রেমের দাম ৩০০৳ হতে পারে। এর চেয়ে বড় ১১০০-১২০০টাকা হতে পারে।

কি লিখবেন ডিজাইনে

এটি একটি গুরুত্বপূর্ন বিষয়। আপনি যদি এটি তৈরী কিংবা ডিজাইন করতে যান, তবে সেখানে কি লিখবেন।

প্রথমত আপনাকে যে স্মরণিকা বানাবেন সেটির তারিখ জেনে নিন। এছাড়া আপনার ব্যক্তির নাম লিখুন উপরে।

তারপর বাংলা,আরবি এবং ইংরেজিতে সেই তারিখটি লিখুন। এছাড়া মৃত্যু স্মরণিকা হলে কখন সময় এবং দিনের নাম লিখুন। এভাবেই স্মরণিকায় লিখুন।

আরো পড়ুন – মোবাইলে কিভাবে লাইভ খেলা দেখবেন 

কিভাবে  Design করবেন

ডিজাইনের জন্যে আপনার একটি কম্পিউটার থাকা প্রয়োজন।

এরপর কিছু যেকোনো একটি ফটোশপ সফটওয়ার। যেমন Adobe Photoshop 7 বা অন্য কোনোটা।তার পূর্বে আপনার ফটোশপের ব্যাপারে ব্যাসিক কিছু ডিজাইন জেনে নেয়া প্রয়োজন।

যার মাধ্যমে আপনি একটি স্মরণিকাকে আরো সুন্দর করে তুলতে পারেন।

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *