LifestyleGhar
Everything Here । Search Your Content । Give your Feedback Us

দ্রুত দাড়ি গজানোর কিছু টিপস | দাড়ি উঠার সহজ উপায়। Beard Tips Bangla

দাড়ি গজানোর টিপস

দাড়ি হচ্ছে ছেলেদের একটি অন্যতম সুন্দর্য্য। যা ইসলাম ধর্মে সুন্নত। দাড়ি ছাড়া ছেলেদেরকে যেনো কিছুটা পানসে লাগে। দাড়ি নিয়ে তরুন ছেলেদের কল্পনার শেষ নেই। যেকোনো ছেলের সুন্দর্য্যকে আরো বেশি বাড়িয়ে তুলে দাড়ি।

জেনে নিন আজ দাড়ি গজানোর টিপস।

কিন্তু প্রায়ই আমরা দেখি অনেক ছেলেদের ঠিকমত দাড়ি গজায়নি। অনেক বয়স হয়ে গেলেও ঠিকমত দাড়ি উঠেনা।

যার কারনে দেখতে কিছুটা অন্যরকম লাগে। এছাড়া অনেক ক্রিম এবং কৌশল অবলম্বন করে দাড়ি গজাতে পারেন নি।

 

আজকে আপনাদেরকে খুব সিম্পল কিছু টিপস দেয়া হবে। যেগুলার মাধ্যমে আপনিও খুব অল্প সময়ের মধ্যে পাবেন সুন্দর ঘন দাড়ি।

 

Wash your face

আপনার প্রত্যেকদিনের ফেইসওয়াশ দিয়ে দাড়িতে ওয়াশ করুন। যেভাবে আপনি নিজের ফেইস ওয়াশ করুন ঠিক সেভাবেই। এভাবে দাড়িতে ফেইসওয়াশ দিয়ে ৩/৪মিনিট ভালোভাবে ওয়াশ করে ধুয়ে ফেলুন।দাড়ি গজানোর টিপস আপনাকে অনেক উপকার করবে।

 

(দাড়িতে কখনো শ্যাম্পু ব্যবহার করা যাবেনা। কেননা আমাদের মাথার ত্বক এবং স্কিনের ত্বক কিন্তু এক না। তাই শ্যাম্পু দাড়িতে ব্যবহার করবেন না।)

 

ফেইসওয়াশ দিয়ে দাড়ি ওয়াশ করে ধুয়ে নেয়ার পর টিস্যু বা টাওয়াল দিয়ে মুছে ফেলুন। এরপর ২/৩মিনিট অপেক্ষা করুন দাড়ি সম্পূর্ণ শুকিয়ে যাওয়ার আগ পর্যন্ত।

দ্রুত দাড়ি গজানোর কিছু টিপস

Use Oil

দাড়িতে আমরা তেল ব্যবহার করবো। এখন আমরা ভেবে থাকতে পারি যে আমরা আমাদের দাড়িতে কোন তেল ব্যবহার করবো। আমরা আজকে বলবো আপনার দাড়িতে আপনি ব্যবহার করবেন অলিভ অয়েল।

হযরত মোহাম্মদ স: নিজের দাড়িতে অলিভ অয়েল তেল ব্যবহার করতেন। যার কারনে উনার ৬০বছর বয়সেও উনার মাত্র ২০টি দাড়ি পেকেছিলো। অলিভ অয়েল ব্যবহারে দাড়ি ঘন এবং পাকেনা।

 

অলিভ অয়েল

Olive Oil ব্যবহারের গুণাগুণ

এটি ব্যবহারে সাইন্টিফিক ভাবে অনেক উপকারিকা রয়েছে।

বিভিন্ন সাইন্টিফিক রা এটি ব্যবহারে জন্যে বলে থাকেন। এছাড়াও এটি ব্যবহারে যে গুন রয়েছে :

 

১. এটি ব্যবহারে দাড়ি সহজে পাকেনা।

২. অলিভ অয়েল ব্যবহারে আপনার দাড়ি সহজে গজাবে।

৩. ত্বকে সহজে বয়সের ছাপ পড়বেনা।

৪. এটিতে কোনো গন্ধ নেই।

৫. অয়েলটি ন্যাচারাল হওয়ায় এটির কোনো সাইড ইফেক্ট নেই।

 

কিভাবে অলিভ অয়েল ব্যবহার করবেন

প্রথমত আপনার দাড়ির পরিমানমত অলিভ অয়েল নিন। তারপর আপনার পুরো দাড়িতে সেটি আস্তে আস্তে এপ্লাই করুন।

অবশ্যই খেয়াল করবেন যেনো বেশি পরিমান না হয়। হাত দিয়ে ত্বকের ভিতরে এবং দাড়ির ভিতরে ঘষুন।

বেশি পরিমান দিলে আপনি অস্বস্তি অনুভব করতে পারেন।

আরো পড়ুন – ডিপ্রেশনে ভুগছেন? তবে পড়ুন হতাশা বা ডিপ্রেশন দূর করুন 

তাই অবশ্যই যেদিন যেদিন ফেসওয়াশ ব্যবহার করবেন সেদিন সেদিন আপনি দাড়িতে অলিভ অয়েল তেল ব্যবহার করবেন।

এতে করে আপনার দাড়ি আরো বেশি ঘন এবং দ্রুত গতিতে সক্ষম হবে।

 

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *